ঘুরতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার স্ত্রী, আটক ২

0 28

|| বঙ্গকথন প্রতিবেদন ||

নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় স্বামীর সাথে ঘুরতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে স্ত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে।

শনিবার রাতে পলাশের ঘোড়াশাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে পুলিশ।

রোববার দুপুরে পলাশ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে তিনজন জড়িত ছিল। দুজনকে আটক করে নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আটকরা হলেন-পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার টেঙ্গরপাড়া গ্রামের মৃত শাহ আলমের ছেলে রাজিব(৩০) ও চামড়াব গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের ছেলে রিফাত(২০)।

পুলিশ জানায়, শনিবার বিকেলে পলাশের জনতা জুট মিলের এক কর্মচারী তার স্ত্রীকে নিয়ে ঘোড়াশাল ফ্লাগ রেলস্টেশনে ঘুরতে যায়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই রেলস্টেশনের ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে তারা ঝালমুড়ি কিনে খাচ্ছিলেন। এ সময় টেঙ্গরপাড়ার রাজিব ও রিফাতসহ অজ্ঞাত আরও এক বখাটে তারা স্বামী-স্ত্রী কিনা তা যাচাইয়ের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করে। একপর্যায়ে ভূক্তভোগীর স্বামীকে তারা মারধর করে ঘোড়াশাল ফ্ল্যাগ রেলস্টেশন থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে টান স্টেশনের কাছাকাছি রেললাইনের ওপরে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। এ সময় বখাটেরা ওই নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

ওই সময় স্বামী ৯৯৯ কল করেন। পরে ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়িকে বিষয়টি জানানো হলে শনিবার রাতে ফাঁড়ির পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বখাটে রাজিব ও রিফাতকে আটক করে।

জেটি//এফএস

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More