ক্রেডিট সুইসে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদেরও অর্থ আছে

0 55

|| বানিজ্য প্রতিবেদন ||

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বিনিয়োগ ব্যাংক ক্রেডিট সুইসে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদেরও অর্থ আছে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

তথ্যে বলা হয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্ত ব্যবসায়ী ও মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী ব্যক্তিদের অন্তত ১০ হাজার কোটি ডলার আছে এই ব্যাংকে।

একটি পত্রিকায় একজন হুইসেলব্লোয়ার বা ব্যাংকের এক সাবেক বা বর্তমান কর্মী জার্মান ক্রেডিট সুইসের এমন ১৮ হাজার সক্রিয় হিসাবের হদিস দেন। এরপর সেই পত্রিকা অর্গানাইজড ক্রাইম রিপোর্টিং প্রজেক্টসহ ৪৬টি বৈশ্বিক সংবাদ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এসব তথ্য ভাগাভাগি করে, যার মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী পত্রিকা নিউইয়র্ক টাইমসও আছে।

এই ব্যাংকে জর্ডানের বাদশাহ আবদুল্লাহ্ ও মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারকের দুই ছেলেও আছেন যারা মিলিয়ন ডলারের বেশি বিনিয়োগ করেছেন।

এই ফাঁস–কাণ্ডের নাম দেয়া হয়েছে ‘সুইসসিক্রেটস’। দ্য গার্ডিয়ান–এর তথ্যানুসারে, অত্যাচার, নির্যাতন, মাদক ও অর্থ পাচারসহ গুরুতর অপরাধের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের হিসাব আছে এই ব্যাংকে।

এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ক্রেডিট সুইস বলেছে, তারা এসব হিসাব খতিয়ে দেখছে। গণমাধ্যমের অনুরোধে এর মধ্যে ৯০ শতাংশ হিসাব ইতিমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে। ৬০ শতাংশ হিসাব ২০১৫ সালে বন্ধ হয়েছে। তবে তাদের অভিযোগ, গণমাধ্যম ক্রেডিট সুইস ও সামগ্রিকভাবে সুইজারল্যান্ডের আর্থিক খাতের গায়ে কলঙ্ক লেপনের চেষ্টা করছে।

জেটি//এফএস

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More