অভিনেত্রী শিমু হত্যার কথা স্বীকার স্বামী নোবেলের

0 26

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

পারিবারিক কলহের জেরেই চলচ্চিত্র অভিনেত্রী রাইমা ইসলাম শিমুকে হত্যা করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে এ কথা স্বীকার করেছেন শিমুর স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল।

স্ত্রীকে খুন করে নিখোঁজের নাটক সাজাতে থানায় করেছিলেন জিডিও। আর অভিনেত্রী শিমুর লাশ গুম করতে সহায়তা করছেন নোবেলের বন্ধু ফরহাদ। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার। এই ঘটনায় তার স্বামীসহ দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদে নোবেল ও ফরহাদ এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন বলেও জানান পুলিশ সুপার।

সোমবার কেরানীগঞ্জে চলচ্চিত্র অভিনেত্রী রাইমা ইসলাম শিমুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে তার মরদেহ রাখা হয়েছে রাজধানীর স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে।

এ ঘটনায় কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।

১৯৯৮ সালে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘ বর্তমান’ ছবির মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক অভিনেত্রী শিমুর। প্রায় ২৫টির মতো চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন তিনি। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি কয়েকটি টিভি নাটকে অভিনয় ও প্রযোজনায় করেছেন শিমু। তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সহযোগী সদস্য ছিলেন।

এসএ//এফএস

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More