১২ ডিসেম্বর পরীক্ষামূলক চালু হচ্ছে ফাইভ-জি

0 11

||বিজ্ঞান-প্রযুক্তি প্রতিবেদন||

পরীক্ষামূলকভাবে উচ্চগতির ইন্টারনেটসেবা ফাইভ-জি চালু হচ্ছে। সরকারি মোবাইল অপারেটর টেলিটক এই সেবা চালু করতে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস ১২ ডিসেম্বরে এই কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। এ জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাহাব উদ্দিন। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে গ্রাহকদের জন্য ২০২২ সালের মধ্যে ঢাকার ২০০টি জায়গায় ফাইভ-জি চালু করা হবে। পরবর্তী সময়ে পর্যায়ক্রমে ঢাকাসহ অন্যান্য স্থানে ফাইভ-জি সেবা বিস্তৃত করা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমরা প্রাথমিকভাবে কয়েকটি জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় ফাইভজি চালুর পরিকল্পনা করেছি। এরমধ্যে রয়েছে— বঙ্গভবন, গণভবন, সংসদ ভবন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, সচিবালয় ও ধানমন্ডি ৩২ নম্বর। এছাড়া আমাদের আরো দুটি স্থাপনায় ফাইভজি চালুর পরিকল্পনা রয়েছে। যদিও এখনো সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয় নি, এগুলো হলো— টুঙ্গিপাড়া ও রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকা।’

ফাইভজি ফোন তৈরির বিষয়টি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘স্যামসাং আমাকে জানিয়েছে, তারা এরইমধ্যে ফাইভজি ফোন তৈরি করেছে।’ অন্যরাও এগিয়ে আসবে বলে তিনি আশাবাদী।

টেকনো, আইটেল ও ইনফিনিক্স মোবাইলের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ট্রানশান বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী রেজওয়ানুল হক জানান, তাদেরো ফাইভজি ফোন তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। আগামী বছরই তারা ফাইভজি ফোনের উৎপাদনে যাবেন।

এসএ//আরজে

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More