সাকিব ভাই-মুস্তাফিজের তো ১০-১২টা হাত না , লঙ্কাজয়ের আশা মুমিনুলের

0 109

||খেলার মাঠ প্রতিবেদন||

ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের স্কোয়াডে ছিলেন সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান। তবে চোটের কারণে প্রথম টেস্ট চলাকালীন ছিটকে যান সাকিব। মুস্তাফিজুর রহমান ছিলেন বটে, কিন্তু সুবিধা করতে পারেননি। ফলে দুই ম্যাচেই হারতে হয় বাংলাদেশ দলকে। এবার বিদেশ সফর। আইপিএলের কারণে দলে নেই সাকিব-মুস্তাফিজ। এনিয়ে অবশ্য ভাবছেন না টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক। বাকি যারা আছেন- তাদের ওপরই আস্থা রাখছেন তিনি।

মুমিনুল হক অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়ার পর নিষেধাজ্ঞার কারণে খেলতে পারেননি সাকিব। উইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সাকিবকে পেয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত ছিলেন মুমিনুল। তবে টাইগার অলরাউন্ডারের চোট অধিনায়কের স্বস্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দেয়নি। এবার কঠিন পরীক্ষা লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আগামী ১২ এপ্রিল দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ দল। তবে এ সফরে আইপিএল খেলতে যাওয়া সাকিব আর মুস্তাফিজকে পাচ্ছেন না অধিনায়ক মুমিনুল।

দেশ ছাড়ার আগে মিরপুরে আজ (রোববার) এক সংবাদ সম্মেলনে মুমিনুল বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় না সাকিব ভাই বা মুস্তাফিজ না থাকলে দলের ফলাফল হবে না। দেখুন খেলোয়াড় তো আরও আছে। ওনাদের তো ১০-১২টা হাত না। বাকিদেরও ১০-১২টা হাত না। আমার কাছে মনে হয় না এর কোনো প্রভাব পড়ে। আমরা হয়তো দলগতভাবে খেলতে পারছি না এই কারণে ইতিবাচক ফলাফল হচ্ছে না। আর কোন কিছু না।’

মুমিনুল আরও বলেন, ‘এটা নির্ভর করবে আপনি কেমন ফলাফল করছেন। ফলাফল যদি ভালো হয় তাহলে আমি বলতে পারব। আপনি যেটা বলেছেন যে সাকিব ভাই নেই, হয়তো এমনো সিরিজ হতে পারে যেখানে ২-৩ জন সিনিয়র ক্রিকেটার থাকবে না। এর মধ্যে যারা খেলবে তাদের জন্য আমি বারবারই কথাটা বলে আসছি, তাদের জন্য ভালো একটা সুযোগ। তাই এই সময়ে যারা খেলবে এটা তো তাদের জন্য ভালো সুযোগ। আমাদের মনে হয় এভাবেই প্রস্তুতি নেয়াটা উত্তম।’

সাকিব-মুস্তাফিজের না থাকা তরুণদের জন্য সুযোগ হিসেবে দেখছেন মুমিনুল। তবে শুরুতে তারা খারাপ করলে সমর্থন দেওয়া উচিৎ বলে করেন মুমিনুল।  

মুমিনুল বলেন, ‘দেখুন আপনি যখন একজন জুনিয়র নিয়ে খেলবেন সে সব সময়ই আশা করবে একটা ভালো কিছু করার জন্য। দেশের জন্য অবদান রাখার জন্য। ওই অবদানটা রাখার জন্যই সে খেলে। আমার কাছে মনে হয় সে সময় তাকে সমর্থন দেয়া উচিত। আমার কাছে মনে হয় তরুণরা পুরোপুরি প্রস্তুত কিন্তু মাঝে মধ্যে ব্যর্থ হয়। সে সময় ওদের সমর্থন দেয়াটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More