যে পথে আফগান প্রধান হলেন হাসান আখুন্দ

0 46

||বিদেশ-বিভূঁই প্রতিবেদন||

আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর পরবর্তী সরকার গঠন নিয়ে নানান আলোচনা ও সমালোচনার নিষ্পত্তি হয়েছে গতকাল। মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে প্রধানমন্ত্রী প্রধান করে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ঘোষণা করে তালেবান। প্রধানমন্ত্রী মোল্লা মোহম্মদ হাসান আখুন্দ তালেবানের সিদ্ধান্ত নির্ধারণকারী বিভাগ ‘রেবারি শুরা’র প্রধান। তিনি গতবার তালেবান শাসিত আফগানিস্তানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন।

হাসান আখুন্দ বর্তমানে জাতিসংঘের কালো তালিকাভুক্ত। জাতিসংঘের জঙ্গি তালিকায় তার নাম রয়েছে। মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ ১৯৯০–এর দশকে তালেবান ক্ষমতায় থাকাকালে কান্দাহার প্রদেশের গভর্নর ছিলেন। পরে সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হন তিনি। মোল্লা ওমরে সান্নিধ্যে থেকে তালেবানের আন্দোলন-সংগ্রামের একচ্ছত্র নেতা হয়ে উঠেছেন মোল্লা আখুন্দ। তালেবানের সূচনা হয় কান্দাহারে, আখুন্দ সেখানকারই বাসিন্দা। জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার প্রতিবেদনে আখুন্দকে ওমরের একজন ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে। ২০০১ সালে আফগানিস্তান মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক বাহিনীর দখলে চলে যাওয়ার পর তালেবানের যে শুরা গঠিত হয়, মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ সেখানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। এছাড়া তিনি ইসলামবিষয়ক বেশ কিছু বইয়ের লেখকও।

এসএ//এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More