ভারতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে জিকা ভাইরাস

0 14

||বিদেশ-বিভূঁই প্রতিবেদন||

ভারতের উত্তর প্রদেশের কানপুরে ৮৯ জনের দেহে জিকা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। জিকা ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে ১৭ জন শিশু ও একজন গর্ভবতী  নারী রয়েছেন। জানা গেছে, জিকা ভাইরাস এডিস মশার একটি প্রজাতির মাধ্যমে ছড়ায়। তবে শারীরিক সম্পর্কের ফলেও এটি ছড়াতে পারে।

২০১৭ সালে ভারতের গুজরাটে জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়। কানপুরে ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হয় ২৩ অক্টোবর। কানপুরের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ডাক্তার সেপাল সিং বলেছেন, কানপুরে জিকা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে।

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন, ‘পরিস্থিতি যতটা গুরুতর রূপ নিয়েছে তাতে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। প্রত্যেক রোগীর স্বাস্থ্যের ওপর সার্বক্ষণিক নজর রাখতে হবে।’

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর কোনো উপসর্গ প্রকাশ পায় না। এটি মানুষের স্নায়বিক বিপর্যয় ঘটায়। ২০০৫ সালে এটি মহামারি রূপে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে ছড়িয়ে পড়ে। বিশ্বে ১৯৪৭ সালে জিকা ভাইরাস প্রথম শনাক্ত হয় বানরের দেহে। 

এসএ//আরজে

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More