বিয়ের পরেই সমালোচনায় মালালা ইউসুফজাই

0 11

||বিদেশ-বিভূঁই প্রতিবেদন||

নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই। সম্প্রতি পাকিস্তানের এই নারী অধিকারকর্মী বিয়ের পরেই অন্যতম প্রধান আলোচ্য বিষয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমের তালেবান-নিয়ন্ত্রিত সোয়াত উপত্যকার মিঙ্গোরায় মেয়েদের স্কুলে যাবার পক্ষে সাহসী এই নারী তার বিয়ের খবর প্রকাশ করেন টুইটারে। টুইটার বার্তায় মালালা জানান, “আসের এবং আমি একত্রিত হয়েছি জীবনের জন্য। সামনের দিনগুলোতে একসাথে পথ চলার জন্য আমরা বেশ উদ্বেলিত।”

তিনি বলেন, এই দিনটি তার জীবনের একটি মূল্যবান দিন। বিয়ের এই খবর প্রকাশের সাথে সাথেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরতে থাকে হাজার মন্তব্য। মালালার সুখী বিবাহিত জীবন কামনা করে উচ্ছসিত শুভেচ্ছার পাশাপাশি নানান সমালোচনাও শুরু হয়। তার কারণ বিয়ে বিষয়ে কিছুসময় আগে মালালার নিজেরই করা একটি উক্তি।

জুন মাসে ব্রিটিশ ‘ভোগ’ সাময়িকীকে দেয়া সাক্ষাতকারে মালালা বলেছিলেন, “আমি এখনো বুঝতে পারি না যে মানুষকে বিয়ে করতে হবে কেন। যদি আপনি একজন মানুষকে জীবনসংগী করতে চান, তার জন্য কেন বিয়ের দলিলে সই করতে হবে, কেন এটা শুধুই একটা পার্টনারশিপ হতে পারবে না?” উক্তিটি দেয়ার ছয় মাস পার না হতেই তিনি নিজেই বিয়ে করে ফেললেন । ব্যাপারটা টুইটারে অসংখ্য ‘বিস্মিত’ প্রতিক্রিয়ার জন্ম দিয়েছে। তাকে নিয়ে চলছে ট্রল। আর এসব প্রতিক্রিয়ার বেশিরভাগই নেতিবাচক।

এসএ//এফএস

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More