বিশ্ব মেডিটেশন দিবস আজ

0 56

।।ডক্টর’স চেম্বার প্রতিবেদন।।

চাকরির টেনশন, আর্থিক টেনশন— নানা টেনশনে অস্থির জীবন। হঠাৎ হঠাৎ রেগে যাচ্ছেন, আত্মবিশ্বাস একেবারে তলানিতে ঠেকেছে, ঘুম আসছে না, বিছানায় এপাশ-ওপাশ করেই রাত শেষ হয়ে যায়। এসব থেকে মুক্তি পেতে মেডিটেশনকে খুবই কার্যকরী ওষুধ বলে মনে করা হয়। বলা হয় প্রতিদিন দশ থেকে পনের মিনিট করে মেডিটেশন করলেই মোটামুটি সপ্তাহ খানেক পরই অনেকটাই ভালো ফল পাওয়া যায়। দুশ্চিন্তা তো কমেই, আত্মবিশ্বাসও ফিরে আসে। মেডিটেশন আসলে এক ধরনের মনের ব্যায়াম। দৈনন্দিন জীবনের নানা চিন্তা-ভাবনা থেকে মনকে সরিয়ে এনে একাগ্র করার উপায়।

মেডিটেশনকে সর্বস্তরের মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে প্রতিবছর ২১ মে পালিত হয় বিশ্ব মেডিটেশন দিবস। নিয়মিত মেডিটেশন চর্চায় মনের রাগ, ক্ষোভ, দুঃখ, হতাশা, টেনশন, স্ট্রেস বা মানসিক চাপ দূর হয়। নেতিবাচকতা থেকে ইতিবাচকতায় বদলে যায় দৃষ্টিভঙ্গি। ফলে, মনোদৈহিক নানা রোগ যেমন : আইবিএস, অনিদ্রা, মাইগ্রেন, করোনারি হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ-সহ নানা রকম ব্যথা-বেদনা ইত্যাদি থেকে নিরাময় লাভ করা যায় খুব সহজেই। মন প্রশান্ত থাকলে, মনে মমতা জাগলে পারিবারিক পেশাগত সামাজিক সম্পর্কগুলোও সুন্দর হয়ে ওঠে। স্ট্রেসমুক্ত থাকা যায় বলে বাড়ে পেশাগত দক্ষতা। শুধু নিয়মিত মেডিটেশন চর্চা করেই একজন মানুষ পেতে পারেন প্রশান্তি সুস্বাস্থ্য ও সাফল্য।

এসএফ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More