বিটিআর’সির নিস্ক্রিয়তা কেন অবৈধ নয়,জানতে চান হাইকোর্ট

0 11

|| বঙ্গকথন প্রতিবেদন ||

মোবাইলফোনের নেটওয়ার্কসহ মানসম্মত সেবা নিশ্চিত করতে মোবাইল কোম্পানিগুলোকে বাধ্য করতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসি’র নিস্ক্রিয়তা কেনো অবৈধ নয়- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে তা জানাতেও নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট বিভাগ। বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ সোমবার এই আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী ও সহকারী এটর্নি জেনারেল এমএমজি সারোয়ার পায়েল। মোবাইলফোনের দুর্বল নেটওয়ার্ক এবং ইন্টারনেটের ধীর গতি সমস্যার সমাধান করে গুণগতমানসম্পন্ন নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষের নিস্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে ১২ জুন হাইকোর্টে এই রিট দায়ের করা হয়। ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের সদস্য সাংবাদিক মেহেদী হাসান ডালিম, মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ এবং সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী মো. রাশিদুল হাসান আবেদনকারী হয়ে রিটটি দায়ের করেন। এ রিটের বিবাদী হলেন তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যান এবং মোবাইলফোন অপারেটরগুলোর প্রধান নির্বাহীরা।

রিট পিটিশনার ডালিম জানান, রিট আবেদনে বলা হয়েছে-দুর্বল নেটওয়ার্ক এবং ইন্টারনেটের ধীর গতির কারণে মোবাইল ফোন গ্রাহকরা মারাত্মক ভোগান্তিতে আছেন। গ্রাহকের কাছ থেকে যে পরিমাণ খরচ নেয়া হয়, সে তুলনায় সেবার মান হতাশাজনক। মোবাইল ফোন এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পেলেও মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলো সে অনুযায়ী সেবা প্রদান করে নি। যার ফলে গ্রাহকদের ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। এজন্য ৬০ দিনের মধ্যে বিটিআরসিকে এফিডেভিট আকারে এ বিষয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়।

জেটি// এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More