ফেসবুক লাইভে এসে ক্ষমা চাইলেন ভিপি নুর

0 132

।।রাজকথন প্রতিবেদন।।

‘যারা আ.লীগ করে তারা মুসলমান নয়’- সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া নিজের এমন বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। রোববার রাতে ফেসবুক লাইভ এসে তিনি ক্ষমা চান। এর আগে রাতে শাহবাগ থানায় তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে লাইভ এসে তিনি তার এই প্রতিক্রিয়া জানান। নূর বলেন, স্বাভাবিকভাবেই অল্প বয়সে একটা গুরুদায়িত্ব নিয়ে ফেলেছি আমরা। বিভিন্ন ধরনের মানুষ, পেশাজীবী মানুষের সঙ্গে একটা বোঝাপড়ার মাধ্যমে আমাদের একটা রাজনৈতিক পরিস্থিতি ডেভেলপ করেছে। যে কারণে আমরা কথা বলার ক্ষেত্রে, কাজ করার ক্ষেত্রে সিনিয়রদের কাছ থেকে শেখার চেষ্টা করেছি। তারা যখন যেসব বিষয়গুলোতে আমাদেরকে উপদেশ দেযন আমরা সেসব বিষয়গুলো মেনে চলি।

বিশেষ করে আমি যাদের সাথে মিশি তারা আমাকে বলেন তোমার কথাবার্তা যেন শুধু ইসলামকেন্দ্রিক না হয়, সব ধর্মের মতাদর্শের মানুষদের সহনশীলতার কথা থাকে, সম্প্রীতির কথা থাকে, তোমার কথায় যেন সহিংসতার ঘটনা না থাকে। আমি চেষ্টা করি কথাগুলো মেনে চলার এবং আমার কাজের ক্ষেত্রে প্রতিফলন ঘটানোর। বিভিন্ন সময় আমার ফেসবুক পোস্ট লাইভকে কেন্দ্র করে মানুষ যেগুলো পরামর্শ দিয়েছে আমি সেগুলো সংশোধন করার চেষ্টা করেছি। কারণ আমি মনে করি আমি একজন নবীন সহযোদ্ধা, নবীন রাজনৈতিক নেতা, একজন নবীনকর্মী। বিভিন্ন সময় ভিন্ন মতের মানুষের কারণে আমি আমার ফেসবুক পোস্ট লাইভ ডিলিট করে দিয়েছি।

তিনি বলেন, ১৬ মার্চ একটা লাইভ করেছি আমি। স্বাভাবিকভাবে একটা দেশের রাজনৈতিক নেতা হিসেবে, একটি নেতৃস্থানীয় জায়গা থেকে আমার কাজ অবশ্যই মানুষের সমস্যাকে অ্যাড্রেস করা। সেখানে আমি লাইভে বিভিন্ন কথাবার্তা বলেছি। কথাবার্তার বিভিন্ন জায়গায় আমি যৌক্তিকভাবে কিছু বিষয় তুলে ধরেছি। তিনি আরও বলেন, কিছু ঘটনা ব্যাখ্যা করার জন্য আমি আমার স্বাভাবিক জায়গা থেকে রাগ ক্ষোভ আবেগ অনুভূতির জায়গা থেকে কিছু কথা বলেছিলাম। আমি মনে করি অবশ্যই আওয়ামী লীগে অনেক ধর্মপ্রাণ মানুষ আছে ধর্মপ্রাণ মুসলমান আছে, সব ধর্মেরই লোক আছে এবং সব দলেই সব ধর্মেরই ধর্মপ্রাণ লোক আছে। আমি আওয়ামী লীগ সমর্থককে কিংবা আওয়ামী লীগকে আক্রমণ করে কোনো কথা বলিনি।

এসএফ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More