‘প্রবারণা পূর্ণিমা’য় নানান আয়োজন দেশজুড়ে

0 42

||ধর্ম-বিধান প্রতিবেদক||

বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের দ্বিতীয় ধর্মীয় উৎসব ‘শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা’ ও ‘কঠিন চীবর দান’ উৎসবের নানান আনুষ্ঠানিকতা চলেছে বুধবার (২০ অক্টোবর)। এই দিনটিকে ‘আশ্বিনী পূর্ণিমা’ নামেও পরিচিত।

বৌদ্ধধর্ম মতে, এই পুণ্যময় পূর্ণিমা তিথিতে মহামানব গৌতম বুদ্ধ তাবতিংস স্বর্গে মাতৃদেবীকে অভিধর্ম দেশনার পর ভারতের সাংকাশ্য নগরে অবতরণ করেন। মানবজাতির সুখ, শান্তি ও কল্যাণের লক্ষ্যে দিকে দিকে স্বধর্ম প্রচারের জন্য তিনি ভিক্ষু সংঘকে নির্দেশ দেন। একই দিনে তার তিন মাসের বর্ষাবাসের পরিসমাপ্তি ঘটে।

দিবসটি উপলক্ষে ফানুস উড়ানোসহ বৌদ্ধ সম্প্রদায় বিভিন্ন ধরনের উৎসবের আয়োজন করেছে সারাদেশেই। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবারণা পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে দেয়া বাণীতে তাদের শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন।

বাণীতে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ধরে রাখার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। মহামতি গৌতম বুদ্ধ একটি শান্তিপূর্ণ ও সৌহার্দ্যময় বিশ্ব গঠনে আজীবন সাম্য, মৈত্রী, মানবতা ও শান্তির অমিয় বাণী প্রচার করে গেছেন। তার আদর্শ ত্যাগের মহিমায় সমুজ্জ্বল ও মানবিকতায় পরিপূর্ণ। বুদ্ধের অহিংস বাণী ও জীবপ্রেম আজও বিশ্বব্যাপী বিপুল সমাদৃত। বাংলাদেশের মাটি ও মানুষের সঙ্গে মিশে আছে হাজার বছরের বৌদ্ধ ঐতিহ্য। এ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রাচীন বৌদ্ধবিহার সেসব ঐতিহ্যের উজ্জ্বল স্বাক্ষর বহন করছে।

এমএইচ//

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More