পুলিশের তদন্ত একতরফা হয়েছে দাবী করে আবারো তদন্তের আবেদন পরীমনির

0 71

|| বঙ্গকথন প্রতিবেদন ||

ধর্ষণচেষ্টা অভিযোগে করা মামলার পুনরায় তদন্ত চেয়ে আদালতে আবেদন করেছেন মামলার বাদি চিত্রনায়িকা পরীমণি।

বুধবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৯ এর বিচারক মোহাম্মদ হেমায়েত উদ্দিনের আদালতে মামলার চার্জশিটের গ্রহণযোগ্যতার বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য ছিল।

এদিন শুনানী উপলক্ষ্যে আদালতে উপস্থিত হন পরীমণি। তার পক্ষে আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত (সুরভী) সঠিক তদন্ত হয়নি দাবি করে পুলিশের দেয়া চার্জশিটে নারাজি আবেদন দাখিল করেন। নারাজি শুনানিতে তিনি বলেন, মামলার তদন্তে অনেক বিষয় বাদ দেয়া হয়েছে । গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষীদের চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। তাই আমরা মামলাটি পুনরায় তদন্তের আবেদন করছি। এরপর বিচারক নারাজির বিষয়ে পরীমণির জবানবন্দি গ্রহণ করেন।

জবানবন্দিতে তিনি বলেন, তদন্তে পর্যালোচনা করা হয়নি ভিডিও ফুটেজ । গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী এমনকি দুই জন ম্যাজিস্ট্রেটের নামো বাদ দেয়া হয়েছে সাক্ষীর তালিকা থেকে। যারা ভিডিও করেছেন এবং ঘটনার সময় যারা ছিলেন জবানবন্দি নেয়া হয়নি তাদের কারো।

এমনসব নানা কারণ উল্লেখ করে বাদী পরিমণি মামলাটি পুলিশ এক তরফা তদন্ত করেছে দাবি করে তা পুনরায় তদন্তের আবেদন জানান ।

রাষ্ট্রপক্ষে স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর শহিদ হোসেন ঢালীও একই অভিযোগ এনে মামলাটি পুনরায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) এসপি পদমর্যাদার কর্মকর্তাকে দিয়ে আবারো তদন্তের প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন। এ সময় আসামিপক্ষের আইনজীবী কাওসার হোসেন নারাজি আবেদনের বিরোধিতা করে বলেন, মামলাটি সঠিকভাবে তদন্ত হয়েছে। এখন পুনরায় তদন্তের কোন প্রয়োজন নেই।

এদিকে জামিনে থাকা দুই আসামি ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি পূর্বশর্তে ওই দিন ট্রাইব্যুনাল থেকে জামিন পান। মামলার অপর আসামি শহিদুল আলম এখনো পলাতক। চলতি বছর ১৪ জুন সাভার থানায় ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিনসহ ছয় জনের নামে মামলা করেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। মামলা দায়েরের পর অভিযানে নামে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। নাসির উদ্দিনসহ পাঁচজনকে উত্তরার একটি বাসা থেকে আটক করে করা হয় ।

জেটি// আরজে

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More