পাঠ্যবই বিতরণ নিয়ে সংঘর্ষ, ৩ জন আহত

0 48

||নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রতিবেদক, (বগুড়া)||

বগুড়ার নন্দীগ্রামে কুমিড়া পন্ডিতপুকুর উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরণ নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে সাবেক দুই ইউপি সদস্যসহ ৩জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় বিনামূল্যে বই বিতরণের কার্যক্রম ভণ্ডুল হয়ে যায়। ঘটনার পর এক পক্ষ তালাও ঝুলিয়ে দেয় প্রধান শিক্ষকের কক্ষে।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ভাটরা এলাকার ওই উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- ভাটরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আখতারুজ্জামান মানিক (৪৫), ৪নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য বেলাল হোসেন (৪২) ও তার সমর্থক বাবু মিয়া (৪০) গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সকালে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে বই বিতরণের আয়োজন করেন বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির সভাপতি আ’লীগ নেতা মজনুর রহমান। এ সময় ভাটরা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারীসহ তার লোকজন এসে বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মাধ্যমে বই বিতরণের দাবি করেন। এ নিয়ে দু’পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে চলা বাকবিতণ্ডা একসময় সংঘর্ষে রূপ নেয়। পরে পুলিশ গিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

বিদ্যালয়ের বর্তমান অ্যাডহক কমিটির সভাপতি মজনুর রহমানের দাবি, ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারীর নেতৃত্বে তার লোকজন বই বিতরণ বন্ধ করে দিয়েছেন। শিক্ষার্থীসহ শিক্ষকদের স্কুলের ভেতরেও ঢুকতে দেয়া হয় নি। প্রধান শিক্ষকের কক্ষে তালাও দিয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা প্রদানের পর থেকে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলেও দাবি মজনুর।

অবশ্য ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারীর দাবি, এলাকাবাসী মজনুকে সভাপতি হিসেবে মানে না। তাই তারাই প্রধান শিক্ষকের কক্ষে তালা ঝুলিয়েছে। শিক্ষকদের ছাড়াই তিনি বই বিতরণের আয়োজন করেছেন বলেই স্থানীয়রা এতে বাধা দিয়েছে।

সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন কুমিড়া পণ্ডিতপুকুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবু রায়হান।

উপজেলা//এমএইচ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More