পাঠ্যবইয়ে মুক্তিযুদ্ধের তথ্যে ভুল, এনসিটিবির চেয়ারম্যানকে হাইকোর্টে তলব

0 22

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

ষষ্ঠ থেকে একাদশ শ্রেণির পাঠ্য বইয়ে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বিষয়ে ভুল তথ্য থাকায় এনসিটিবির চেয়ারম্যানকে হাইকোর্টে তলব করেছেন আদালত। রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মুস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এই বিষয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি এ ভুলের বিষয়ে জবাব দিতে এনসিটিবি চেয়ারম্যান ও একজন সদস্যকে তলব করেছেন আদালত। আগামী ১০ নভেম্বর তাদের সশরীরে আদালতে উপস্থিত হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে হবে। এ সংক্রান্ত একটি রিট আবেদনে বলা হয়, নবম-দশম শ্রেণির বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা বইয়ের ১৭৪ পৃষ্ঠায় ৯ নম্বর লাইনে আছে ‘দলীয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’। কিন্তু হবে ‘আওয়ামী লীগের সভাপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’। ১৮৭ পৃষ্ঠায় শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি’ বলা হয়েছে। অথচ স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি’ বলা হয়েছে। একই বইয়ের সংবিধানের ১১ অনুচ্ছেদের লাইনটিও ভুলভাবে তুলে ধরা হয়েছে। নবম ও দশম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ের ২৯ পৃষ্ঠায় ‘বঙ্গভবন’কে লেখা হয়েছে ‘প্রেসিডেন্ট ভবন’। সেই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কার্যকাল ‘পাঁচ বছর’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। অথচ সংবিধানের কোথাও আলাদাভাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যের কথা উল্লেখ নেই।

এমএইচ//

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More