পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রী সন্তানকে গলা কেটে হত্যা

0 51

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

নরসিংদীতে পরকীয়া সন্দেহের জেরে স্ত্রী ও সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করেছে স্বামী ফখরুল। রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে শহরের ঘোড়াদিয়ার সঙ্গীতা এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্বামী ফখরুল মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত দুজন হলেন রেশমী আক্তার (২৬) ও তার দেড় বছরের সন্তান সালমান সাফায়াত। নিহত রেশমী পৌর শহরের দত্তপাড়া এলাকার পারভেজ মিয়ার মেয়ে।

রেশমির তিন বছর আগে ফখরুলের সঙ্গে বিয়ে হলেও তাদের সংসারে বিভিন্ন সময় ঝগড়াঝাটি লেগেই থাকত  বলে জানিয়েছে তাঁর স্বজনরা।  ফখরুল ও তার পরিবার রেশমীকে বিভিন্ন সময় শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো । ফখরুল ঘোড়াদিয়া সঙ্গীতা এলাকার মোহাম্মাদ সাইফুল্লার ছেলে

এদিকে রেশমির বাবা বলেন যে, আমার মেয়েটিকে বিয়ের পর যেভাবে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেছে আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই । আমি ফখরুলের এমন সাজা চাই যে পৃথিবীতে আর কোন বাবা জনতার আদরের শিশুটিকে না মেরে ফেলে ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম বলেন, নিহত রেশমীর পরকীয়া সম্পর্ক ছিল, এমন বিষয় নিয়ে তার স্বামী তাকে সন্দেহ করতো। এরই জের ধরে ফখরুল মিয়া তার স্ত্রী ও সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করে। ফখরুলকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে সে পরকীয়ার কারণে স্ত্রীর প্রতি ক্ষুব্ধ ছিল বলে নিশ্চিত করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

এসএ//এফএস

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More