‘নিমপাতা’ ও ‘লিনজা’ কয়েলের কারখানায় অভিযান, ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড

0 94

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন-বিএসটিআই’র অনুমোদন ছাড়াই নকল মনোগ্রাম ব্যবহার করে মশার কয়েল উৎপাদন করায় বগুড়ার এসএমআর কনজ্যুমার প্রোডাক্টস নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদাল। বিএসটিআই এবং র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-র‍্যাব পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত এই অর্থদণ্ড দেন।

বিএসটিআই’র বগুড়া জেলা অফিসের পরিদর্শনকারী কর্মকর্তা প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ জানান, শহরের ফুলবাড়ী এলাকার মেসার্স এসএমআর কনজ্যুমার বিএসটিআই’য়ের মানসনদ ছাড়াই নকল লোগো ব্যবহার করে দীর্ঘদিন ধরে নিমপাতা ও লিনজা ব্র্যান্ডের কয়েল উৎপাদন করে বাজারজাত করছিলো। রোববার কারখানায় অভিযান চালিয়ে এর সত্য মেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট  রূপম দাস ওই কারখানার মালিককে ৩০ হাজার টাকার অর্থদণ্ড দেন। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ কয়েলও জব্দ করা হয়।

এই কর্মকর্তা আরো জানান, বিএসটিআই’র গুণগত মানসনদ না নিয়ে অবৈধভাবে দেশী-বিদেশী বিভিন্ন প্রকার নামীদামী ব্র্যান্ডের সিনথেটিক ডিটারজেন্ট পাউডার উৎপাদন ও বাজারজাত করছিলো শহরের নাটাইপাড়া এলাকার মেসার্স হাসনাত ব্রাদার্স। রোববার সেখানে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ নকল ডিটারজেন্ট পাউডার জব্দ করা হয়েছে।

এমএইচ//

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More