নন্দীগ্রামে বছর না পেরোতেই ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর বাড়িতে ফাটল

0 93

।।উপজেলা প্রতিবেদক নন্দীগ্রাম (বগুড়া)।।

উদ্বোধনের বছর না পেরোতেই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে দেওয়া ‘বাড়ি’তে দেখা দিয়েছে ফাটল। ফলে আশ্রয় নেওয়া ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পরিবারগুলো এখন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। বাড়ি পাওয়া পরিবারগুলোর চোখে মুখে দুশ্চিন্তার ভাঁজ।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে গত ২০১৯-২০ অর্থবছরে উপজেলায় নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়নের ইউসুবপুর ও হাটলাল গ্রামে ১০টি সেমিপাকা আধাপাকা বাড়ি নির্মাণ করা হয়। প্রতিটি বাড়ির বরাদ্দ নির্মাণ করতে ব্যয় ধরা হয় ২ লাখ ২০ হাজার টাকা। আর এসব ঘর ভূমিহীনদের মাঝে বুঝে দেওয়া হয় নাম ফলক অনুযায়ী গত বছরের আগষ্ট মাসে। বাড়িগুলো পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর আদিবাসী পরিবারগুলো। তবে বছর না পেরোতেই ফাটল দেখা দিয়েছে বেশ কয়েকটি বাড়ির দেয়াল, মেঝে ও বারান্দার পিলারে। ফলে এসব বাড়িতে আশ্রয় নেওয়া পরিবারগুলো এখন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার ইউসুবপুর গ্রামে সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে বেশ কয়েকটি বাড়ি ফাটল সৃষ্টি হয়েছে। অনেক বাড়ির দেয়াল, মেঝে ও বারান্দার পিলারে ফাটল ধরেছে। বারান্দার পিলার ভেঙে পড়ার উপক্রম। স্থানীয়দের অভিযোগ, অনেকটাই তড়িঘড়ি করে ঘরগুলো নির্মাণ ও মানসম্মত উপকরণ ব্যবহার না করার কারণেই এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

এসএফ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More