নতুন পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে রাশিয়ার সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ

0 36

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

দক্ষিণাঞ্চলে আরেকটি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করতে চায় সরকার। আর এ ব্যাপারে রাশিয়ার অব্যাহত সহযোগিতাও প্রয়োজন। সোমবার (১১ অক্টোবর) রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু শক্তি করপোরেশন রোসাটমের মহাপরিচালক আলেক্সি লিখাচেভ প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে সৌজন্য সাক্ষাতে আসেন । সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা নতুন পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে কথা বলেন  লিখাচেভের সঙ্গে।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ পাবনার রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নির্মাণে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পরমাণু শক্তি করপোরেশন রোসাটম সহযোগিতা দিচ্ছে। নিরাপত্তার বিষয়ে সর্বাধিক গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী রোসাটম’র মহাপরিচালককে স্থানীয় জনগণকে প্রশিক্ষণ দেয়ার আহ্বান জানান, যাতে তারা রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র (আরএনপিপি) নিজেরাই নিরাপদে চালাতে পারে। এসময় লিখাচেভ প্রধানমন্ত্রীকে জানান, নিরাপত্তার বিষয়টিকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছেন তারা এবং রূপপুর প্রকল্পের কাছাকাছি এলাকায় সামাজিক উন্নয়নেও কাজ করছেন।

তিনি আরো জানান, ২০২৩ সালের মধ্যে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তিধর দেশে পরিণত হবে। আরএনপিপি পরিচালনার জন্য তারা বাংলাদেশিদের প্রশিক্ষণ দেবেন সেই সাথে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। রোসাটম’র মহাপরিচালক স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন আরএনপিপিতে কর্মরত ৯০ শতাংশের বেশি রাশিয়ান নাগরিককে তারা টিকা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের (আরএনপিপি) মূল যন্ত্র রিয়্যাক্টর প্রেসার ভেসেল স্থাপনের কাজের উদ্বোধন করেছেন। পাবনার আরএনপিপিতে দুটি ইউনিট রয়েছে যার প্রত্যেকটির উৎপাদন ক্ষমতা ১২শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুত। এটি দেশের প্রথম এ ধরনের বিদ্যুৎ প্রকল্প।

এসএ//এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More