দীঘির দখল নিতে গ্রাম অবরুদ্ধ

0 35

।।জেলা প্রতিবেদক নাটোর।।

বিলের এক কোণে অর্ধশত বিঘা জমিতে বোরো ধানের আবাদ। খেতজুড়ে পাতার মাঝে উঁকি দিচ্ছে কচি ধানের শীষ। সবকিছু ঠিক থাকলে দু’মাস বাদেই কৃষকের গোলায় ধান ওঠার কথা। কিন্তু সেচের অভাবে ধানের কচি পাতা লালচে হয়ে এসেছে। কেননা বিলের খাস জলমহাল নিয়ন্ত্রণ নিয়ে গ্রামবাসীর বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষরা আবাদি জমিসহ একটি গ্রামকে ‘লকডাউন’ ঘোষণা করেছে। তিন মাস আগে থেকেই গ্রামটির ৮০টি পরিবার ঘরবন্দি হয়ে পড়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউনিয়নের ক্ষিদ্রি আটাই গ্রামে। আটাই ও ক্ষিদ্রি আটাই গ্রামের এক কোণে পাঙ্গিয়ার দীঘি। এটি ৫২ একর ৭২ শতক আয়তনের একটি সরকারি জলমহাল (দুটি মৎস্য অভয়াশ্রমসহ)।

ক্ষিদ্রি আটাই গ্রামের ক্ষিদ্রি আটাই মৎসজীবী সমবায় সমিতি প্রায় এক বছর আগে ৮ লাখ ১০ হাজার টাকায় তিন বছরের জন্য জলমহালটি সরকারের কাছ থেকে ইজারা নেয়। কচুরিপানা পরিষ্কার, মাছের পোনা ছাড়া, খাদ্য সরবরাহ ও ব্যবস্থাপনা বাবদ ওই সমিতি এ পর্যন্ত ৩৫ লাখ টাকা খরচ করেছে। কিন্তু ইজারা নিতে ব্যার্থ হয়ে আটাই গ্রামের লোকজন গত ডিসেম্বর মাসে জোর করে দীঘিটির নিয়ন্ত্রণ নেয়। ইজারা গ্রহিতাদের সেখানে প্রবেশ করতে বাধা দেয়। উভয় গ্রামবাসীর মধ্যে শুরু হয় বিরোধ। পরে তা সংঘাত-সংঘর্ষে রূপ নেয়।

এসএফ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More