গোটা দেশ দখলে থাকলেও পানশিরে এখনো লড়াই তালেবানদের

0 25

||বিদেশ-বিভূঁই প্রতিবেদন||

গোটা আফগানিস্তান এখন তালেবানের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ পানশির এখনো ন্যাশরাল রেজিসট্যান্স ফ্রন্ট বা এনআরএফের দখলে। বৃটিশ গণমাধ্যম বিবিসি বলছে, বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে এই দুই দলের মধ্যে। উভয় পক্ষই ব্যাপক হতাহতের দাবি জানিয়েছে। শুক্রবারও ব্যাপক গোলাগুলির শব্দ মিলেছে পানশির এলাকায়।

আরেক গণমাধ্যম সিএনএনও বলছে, পানশিরে এখনো লড়াই চলমান বলে জানিয়েছে ন্যাশরাল রেজিসট্যান্স ফ্রন্ট। এই এলাকার দখল নিতে নিজেদের সর্বোচ্চ ক্ষমতা প্রয়োগ করলেও তালেবান তেমন সুবিধা করতে পারছে না বলে দাবি এনআরএফের। বর্তমানে প্রদেশটিতে চলছে সাবেক মুজাহিদিনের কমান্ডার ও উত্তরাঞ্চলীয় জোটের প্রধান আহমদ শাহ মাসুদের ছেলে আহমদ মাসুদের আধিপত্য।

বুধবার পানশির প্রদেশটিকে তিনদিক থেকে ঘিরে ফেলার দাবি করে তালেবান। তবে এনআরএফ বলছে, পানশিরের সব প্রবেশপথ তাদের কড়া নিয়ন্ত্রণে। এর আগে শান্তিপূর্ণ সমাধানের আহ্বান জানিয়েছিল তালেবান। তাদের মতে, এই অঞ্চলে লড়াই ছাড়াই সমাধান সম্ভব। তবে এ আলোচনা তেমন ফলপ্রসু না হওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে লড়াই।

এর আগে ২০০১ সালে আফগানিস্তানের প্রায় সব অঞ্চল দখল করতে পারলেও পানশির ছিল তালেবানের নাগালের বাইরে। ওই সময় মুজাহিদিনের কমান্ডার আহমদ শাহ মাসুদের নেতৃত্বে শক্তিশালী প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল এনআরএফ। বর্তমানে তার ছেলে আহমদ মাসুদের নেতৃত্বে তালেবানের কাছে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে এই অঞ্চল। আফগানিস্তানে একটি অংশগ্রহণমূলক সরকার গঠনেরও দাবি জানিয়েছে এনআরএফ। তবে তা তালেবান মানবে কি না তা এখনো স্পষ্ট নয়।

এমএইচ//

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More