গাড়ি বিস্ফোরণে পাকিস্তানে টিভি সাংবাদিকের প্রাণহানি

0 59

||বিদেশ-বিভূঁই প্রতিবেদন||

পাকিস্তানে গাড়ি বিস্ফোরণে শহীদ জেহরি নামের একজন টেলিভিশন সাংবাদিক প্রাণ হারিয়েছেন। রোববার রাতে পাকিস্তানের হাব শহরের রাস্তা ধরে গাড়ি চালিয়ে যাবার সময় তার ওপর হামলা করার দায় স্বীকার করেছে বিচ্ছিন্নতাবাদী বেলুচ লিবারেশন আর্মি-বিএলএ। শহীদ জেহরি পাকিস্তানের মেট্রো-ওয়ান টিভিতে কর্মরত ছিলেন।

বেলুচিস্তানের সাংবাদিক শহীদ জেহরি

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা ইউনুস রাজার বরাতে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা বলছে, পাকিস্তানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ বেলুচিস্তানের হাব শহরের সড়ক ধরে রোববার রাতে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন মেট্রো-ওয়ান টিভির বেলুচিস্তানের রিপোর্টার শহীদ জেহরি। এসময় তার গাড়ি বিস্ফোরিত হলে তিনি গুরুতর আহত হন। প্রথমে থাকে স্থানীয় জ্যাম গুলাম খান হাসপাতালে এবং পরে করাচির হাসপাতালে নেয়া হয়। কিন্তু ততক্ষণে মারা যান এই সাংবাদিক। পুলিশের ধারণা, বিচ্ছিন্নতাবাদীরা শহীদের গাড়ির চালকের আসনের নিচে ম্যাগনেটিক ডিভাইসের মাধ্যমে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটিয়েছে।

শহীদ জেহরির মৃত্যুর পর বেলুচিস্তানের বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী বেলুচ লিবারেশন আর্মি-বিএলএ এক বিবৃতিতে এই বিস্ফোরণ ও হত্যার দায় স্বীকার করেছে। শহীদ সাংবাদিকতার পাশাপাশি সরকারের নিরাপত্তা বাহিনীকে বিভিন্ন তথ্য সরবরাহ করে আসছে, বিএলএ’র এমন অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

এদিকে পাকিস্তান ফেডারেল ইউনিয়ন অব জার্নালিস্টসের (পিএফইউজে) সভাপতি শাহজাদা জুলফিকার বলছেন, সশস্ত্র গোষ্ঠীর সদস্যরা বেলুচিস্তান প্রদেশে সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালানোর পর সবসময় এ ধরনের অভিযোগই করে থাকে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো ঘটনার ক্ষেত্রেই বিচ্ছিন্নতাবাদীরা এই তথ্যের কোনো প্রমাণ দিতে পারে নি।

‘কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট’-সিপিজে বলছে, পাকিস্তান গত তিন দশক ধরে সাংবাদিকদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হিসেবে রয়েছে। ১৯৯২ সাল থেকে চলতি বছর পর্যন্ত পাকিস্তানে অন্তত ৬১ জন সাংবাদিক বিভিন্ন গোষ্ঠীর হামলার মারা গেছেন বলেও জানায় সংস্থাটি।

জেটি//এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More