কলকাতায় ফিরছেন নারিন, কপাল পুড়বে সাকিবের?

0 117

||খেলার মাঠ প্রতিবেদন||

আইপিএলের চলতি মৌসুমে এখনও পর্যন্ত সে অর্থ সফল হতে পারেননি কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিন ম্যাচ খেলে ব্যাট হাতে ৩৮ রান এবং বল হাতে শিকার করেছেন ২ উইকেট। ব্যাটিংয়ে স্ট্রাইকরেট একশর নিচে আর বোলিংয়ে রান দিয়েছেন ওভারপ্রতি আটের ওপরে।

যার ফলে এখন সাকিবের জায়গায় সুনিল নারিনকে খেলানোর কথা ভাবছে কেকেআর টিম ম্যানেজম্যান্ট। মূলত নারিনের জায়গায়ই আসরের প্রথম ম্যাচ থেকে খেলছেন সাকিব। গত আসরে আশানুরুপ পারফরম্যান্স করতে না পারায় নারিনের বিকল্প খুঁজতে মরিয়া ছিল কলকাতা।

এবারের আসরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ১০ রানে হারিয়ে ইতিবাচক শুরু করেছিল কলকাতা। সেই ম্যাচে ৪ ওভারে ৩৪ রান খরচায় ১ উইকেট নেন সাকিব। পরের ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কাছে ১০ রানে হারে কলকাতা। সাকিবের পারফরম্যান্স ছিল ৪ ওভারে ২৩ রানে ১ উইকেট ও ৯ বলে ৯ রান।

কিন্তু রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে হতাশ করেছেন সাকিব। বোলিংয়ে প্রথম দুই ওভারে ২৪ রান খরচ করায় তাকে দিয়ে ৪ ওভার করাননি অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান। পরে ব্যাট হাতে ওভারপ্রতি প্রায় ১২ রানের চাহিদায় সাকিব খেলেন ২৫ বলে ২৬ রানের মন্থর ইনিংস।

অবশ্য শুধু সাকিব একা নন, কলকাতার একাদশে থাকা অন্য তিন বেশি অধিনায়ক মরগ্যান, মারকুটে অলরাউন্ডার রাসেল ও পেসার প্যাট কামিনসও আহামরি কোনো পারফরম্যান্স দেখাতে পারেননি। যে কারণে এখন চতুর্থ ম্যাচের আগে নিজেদের একাদশ নিয়ে ভাবতে বসেছে কলকাতা।

সেক্ষেত্রে স্পিনিং অলরাউন্ডার ও মারকুটে টপঅর্ডার সুনিল নারিনকে একাদশে নেয়ার ইঙ্গিতই দিলেন দলের কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। তবে বাদ দেয়া হবে কাকে, এ বিষয়ে কিছু বলেননি তিনি। কিন্তু দলের মধ্যে স্পিনিং অলরাউন্ডার একমাত্র সাকিবই থাকায়, কোপটা হয়তো তার ওপরেই পড়বে।

ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে ম্যাচের পর ম্যাককালাম বলেছেন, ‘আমাদের প্রথম ম্যাচের সময় সীমানার কাছে দাঁড়িয়ে ছিল নারিন। সে তখন শতভাগ ফিট ছিল না। তবে এখন সে আমাদের ভাবনায় আছে। ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে হয়তো তাকে খেলানো যেত। তবে আমরা সাকিবকে নিয়েই খেলেছি। কারণ সে আগের দুই ম্যাচ ভাল করেছে এবং তার ব্যাটিংও আমাদের জন্য কার্যকর।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘তিন ম্যাচ শেষে এখন বলব, ছেলেরা ভালো খেলেছে তবে আমরা ফলটা পাইনি। এখন মুম্বাইয়ের উইকেটে হয়তো আমাদের নতুন কাউকে লাগবে। পরের ম্যাচে আমরা একটা বা দুইটা পরিবর্তন দেখতে পারি। তবে সবমিলিয়ে আমি বলবো যে, টুর্নামেন্টে ভালো করার মতো সক্ষমতা আমরা দেখাতে পেরেছি।’

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More