“আপনি কেন এখন নির্বাচন করে শুধু শুধু নিজের ভাইবোনকে রক্তে রাঙাবেন “- কুষ্টিয়ায় এমপি পুত্রের হুঁশিয়ারী

0 17

‘এখনো সময় আছে, আমরা কিন্তু এখনো আমাদের রুদ্র আচরণ শুরু করিনি। আপনি আপনার মানসম্মান নিয়ে ঘরে উঠুন। আমরা যদি রুদ্রমূর্তি ধারণ করি, সেটা হবে আপনাদের জন্য খারাপ, আমাদের জন্যও খারাপ।…রক্তের খেলা কিন্তু বন্ধ হবে না… ভোট সেন্টারে যেতেও পারবেন না…।’

।। বঙ্গকথন প্রতিবেদন ।।

৩ মিনিট ২৪ সেকেন্ডের এই ভিডিও-র পুরো সময়জুড়ে কুষ্টিয়া – ১ আসনের সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল হক চৌধুরীর ছেলে আমরান চৌধুরী কলিন্সের বক্তব্য কেউ বসে কেউবা দাঁড়িয়ে শুনেছেন । কয়েকদফা হাত তালিও দিয়েছেন সবাই । কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের এক পথসভায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদ হাসানের (মন্টি সরকার) উদ্দেশে প্রকাশ্যেই এমনসব হুঁশিয়ারি দেন ইমরান চৌধুরী (কলিন্স)।

 ‘আমরা আমাদের প্রার্থীকে (জামিরুল) বিজয়ী করার জন্য কত কী যে করতে পারি, সেটা হয়তো আপনার ধারণা নেই। নৌকা পেয়েছে আমাদের জামিরুল ইসলাম বাবু ভাই। তিনি টোকেন চৌধুরীর (ইমরানের চাচা যুবলীগ নেতা) প্রার্থী, রেজাউল হক চৌধুরীর প্রার্থী, মাহবুব উল আলম হানিফ সাহেবের প্রার্থী। তাঁকে বিজয়ী করার জন্য আমাদের যা যা করার দরকার, তা-ই করব – সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা আবিদকে উদ্দেশ্য করে এই কথাগুলো বলেন এমপি পুত্র ইমরান।

হুঁশিয়ার করে ইমরান চৌধুরী আরও বলেন, ‘আপনি আমাদের শ্রদ্ধাভাজন ভাই, আপনাকে অনুরোধ করব আপনার লোকবল তুলে, সুন্দরভাবে মাইকিং করে অথবা সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জন করুন। এতে আপনারও ভালো, আপনার দলের লোকেরও ভালো।’ তিনি বলেন, ‘যদি কখনো বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসে, আপনি সেই দিন আবার নির্বাচন করবেন। আমরা সেদিন আপনাকে কিছু বলতে যাব না, কিন্তু এখন আমার দল ক্ষমতায়, আপনি কেন এখন নির্বাচন করে শুধু শুধু নিজের ভাইবোনকে রক্তে রাঙাবেন। আপনি যদি আপনার দলের লোককে ভালোবেসে থাকেন, আপনি যদি আপনার গ্রামের লোককে ভালোবেসে থাকেন, আপনি যদি আপনার দলীয় কর্মীকে ভালোবেসে থাকেন, তাহলে আপনি দলের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে এই নির্বাচন বর্জন করে ঘরে উঠে বসে থাকুন। তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘তা না হলে ভাই এই রক্তের খেলা কিন্তু বন্ধ হবে না। এই রক্তের দায়ভার কিন্তু আপনাকে নিতে হবে। আগামী ২৮ তারিখে কিন্তু আপনি ভোট সেন্টারে যেতেও পারবেন না, ভোটটাও দিতে পারবেন না। শুধু শুধু আপনি আপনার ক্ষতি করছেন। আপনার কর্মীদের ক্ষতি করছেন।’

এ সভায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জামিরুল ইসলামসহ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরজে/২০ নভেম্বর ২০২১

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More