একটা পাখি খুঁজে দিলে, পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা!

0 80

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

‘সন্ধানদাতাকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার দেয়া হবে’ উল্লেখ করে একটি হারানো বিজ্ঞপ্তির পোস্টার গুলশান এলাকার দেয়ালে দেয়ালে সাঁটানো।না, কোনো শিশু বা মানুষের সন্ধান চেয়ে লাগানো হয় নি এই পোস্টার। ‘কিউই’ নামের এক হারিয়ে যাওয়া টিয়া পাখির সন্ধান চেয়ে এই পোস্টার সাঁটিয়েছেন পাখিটির মালিক ফাইজা ইব্রাহিম।

ফাইজা বলেন, পোষা পাখিটি বাড়ির সবার প্রিয় হওয়ায় কাঁধে কাঁধে ঘুরে বেড়াতো। রাতের শুধু খাঁচায় থাকতো। ৩ অক্টোবর সকাল নয়টা থেকে পাখিটা নিখোঁজ। এর আগে দুবার হারিয়ে যাবার ফের খোঁজ পেয়েছিলাম। তৃতীয়বারের মত আমি সৌভাগ্যবান হবো কী না জানি না। প্রথমবার হারানোর সময় পোস্টার দিয়েছিলাম। বাসার পাশেই কন্স্ট্রাকশনের লোকজন খুঁজে পেয়েছিরো। আমি তাদেরকে ১৪ হাজার টাকা দিয়েছি। দ্বিতীয়বারও পেয়েছিলাম তাদের কাছ থেকেই। তবে সেবার তারা টাকা নিতে চায় নি। কিন্তু আমি তাদের উপহার দিয়েছি।‘

‘কিউই’কে খুঁজে দেয়ার জন্য ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করলেন কেন?-এমন প্রশ্নের জবাবে ফাইজা বলেন, ‘আমার কাছে টাকার চেয়ে বড় হল পাখিটাকে পাওয়া। একটা মানুষ কষ্ট করে পাখি খুঁজে দেবে, তার অবশ্যই পুরস্কৃত হওয়া উচিত। পোস্টার সাঁটানোর পর ৪০টা ফোন কল পেয়েছি, অনেকেই পাখিটা খুঁজে দিতে চেয়েছেন। পাখি খুঁজে দিলে আমি সত্যি সত্যিই টাকা দেবো কী না, এটাও অনেকে জানতে চাইছেন। আমি তাদের কে নিশ্চয়তা দিয়েছি।‘

সান কন্যুর প্রজাতির এই টিয়া পাখিটি ২০১৮ সালে কেনেন ফাইজা। এই প্রজাতির টিয়া পাখির জন্ম সাধারণত দক্ষিণ আমেরিকায় হয়। এটি মূলত কেজ বার্ড বা খাঁচায় পোষা পাখি। খাঁচার বাইরে এদের কম দেখা যায়।

এসএ//এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More