একজনের করোনা শনাক্তের পর লকডাউনে পুরো রাজধানী

0 35

আট বছর বয়সী এক শিশুর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরই ভুটানের রাজধানী থিম্পুতে লকডাউন কার্যকর করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই  লকডাউন চলবে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টা।

এর আগে একইদিন দুপুরের দিকে থিম্পুর ড্রুক স্কুলের এক শিক্ষার্থীর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। পরে তড়িঘড়ি করে শহরে লকডাউন ঘোষণা করে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ওই শিক্ষার্থীর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। যদিও আরটি-পিসিআর টেস্টে রিপোর্ট এসেছে নেগেটিভ। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওই শিক্ষার্থীর আবারও করোনা পরীক্ষা করা হবে। এছাড়া ৭২ ঘণ্টার এই লকডাউনের সময় থিম্পুজুড়ে সবার করোনা পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ভুটানের জাতীয় বার্তাসংস্থা বিবিএস জানিয়েছে, থিম্পুর একটি বিদ্যালয়ে নিয়ম মাফিক ব়্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট চলছিল। সেই পরীক্ষায় এক শিক্ষার্থীর দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপরই তাৎক্ষণিকভাবে রাজধানী শহরে লকডাউন জারি করার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

ভুটানের রাজা জিগমে খেসর নামগিয়াল ওয়াংচুকের বিশেষ নির্দেশে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং লকডাউনের বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেচেন ওয়াংমোর সঙ্গে আলোচনা করেন। এরপরই মূলত লকডাউন কার্যকরের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

চলমান করোনাভাইরাস মহামারিতে সারা বিশ্ব কার্যত বিপর্যস্ত হলেও মোটামুটি বিচ্ছিন্ন থেকে সফলভাবে মহামারি নিয়ন্ত্রণ করেছে ভুটান। এমনকি ভারত ও চীনের মধ্যবর্তী এই দেশটির করোনা মোকাবিলায় সাফল্যে বিস্মিত হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)-সহ বিভিন্ন সংস্থা ও উন্নত দেশ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করেনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে মাত্র একজন।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More