ইউএনও আসায় ভাবী সাজলেন কনে!

0 46

|| বঙ্গকথন প্রতিবেদন ||

পুলিশসহ বিয়ে বাড়িতে হঠাৎ করেই উপস্থিত হল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বরের পাশে কনে সেজে বসে পড়েন মেয়ের ভাবি। তবুও শেষ রক্ষা হলো না।

বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের ন্যাটাশন গ্রামে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টাকালে এমন দৃশ্য দেখা যায়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল কুমারের উপস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে নবাবগঞ্জ উপজেলার কুশদহ ইউনিয়নের বর রুবেল ইসলাম ও কাজি রেহান রেজাকে ৬ মাসের কারাদন্ড দেয়া হয়। সেই সাথে বরকে জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর সাথে পূর্বনির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী বৃহস্পতিবার রাতে বিয়ের আয়োজন করা হয়। এ সময় দ্রুত বিয়ের কাজ শেষ করতে কাজি রেহান রেজা খসড়া লেখা প্রায় শেষ করছিলেন তার আগেই ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিয়ে বন্ধ করা হয়।

জেটি//এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More