আত্মহত্যা করতে চাওয়ার কারন জানালেন ইলিয়ানা ডি ক্রুজ

0 38

বলিউড সেনসেশন ইলিয়ানা ডি ক্রুজ। গ্লামার, চেহারা, নান্দনিক অভিনয়গুনে সবার মন জয় করেছেন এই অভিনেত্রী। সবার হৃদয় জয় করা এই তরুণী কি না এক সময় বেছে নিয়েছিলেন আত্নহত্যার পথ।

সম্প্রতি এই অভিনেত্রী বডি শেমিং নিয়ে কথা বলতে  গিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।  

ইলিয়ানার কথায়, তখন আমার বয়স ১২ বছর। পিউবার্টিতে ঢুকছি। তখন লোকে আমার শরীর নিয়ে কথা বলত।  অবাক হতাম। এখনও সে সব দিনের কথা মনে পড়লে মনে হয়, গতকালের ঘটনা। এতটাই ভয় ঢুকে গিয়েছে ভেতরে।ডিপ্রেশনে ভোগা এই অভিনেত্রী আরো জানায়,  এসব পরিস্থিতিতে নিজের মনের ওপর বিশ্বাস রাখাটা খুব দরকার। লোকে কী বলছে, তা অত গুরুত্ব না দেওয়ার জন্য মানসিক শক্তি প্রয়োজন।

ইলিয়ানার মনে হতো, এক মুহূর্তেই যদি সবকিছু শেষ করে দেওয়া যায়, তাহলে কেমন হবে? সেই পরিস্থিতি উতরে গেছেন এই অভিনেত্রী।  তার অভিনীত ‘দ্য বিগ বুল’ ওয়েব সিরিজ মুক্তি পেয়েছে সম্প্রতি। এতে ইলিয়ানার অভিনয় আলাদাভাবে নজর কেড়েছে। 

বডি শেমিং করাটা অপরাধ বলে মনে করেন ইলিয়ানা। সব থেকে বড় কথা, কেউ এমন করলে ভেঙে না পড়ে প্রতিবাদ করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। আর বাড়াতে হবে আত্মবিশ্বাস। এটাই ইলিয়ানার ভালো থাকার মন্ত্র।

ইলিয়ানা জন্ম ১ নভেম্বর ১৯৮৭। তিনি মূলত তেলুগু এবং হিন্দি চলচ্চিত্রে অভিনয় করে থাকেন। তামিল চলচ্চিত্রে ডি’ক্রুজ কেদি (২০০৬) এবং শঙ্করের নানবান (২০১২)-তে অভিনয় করেছেন। ২০১২ সালে ডি’ক্রুজ অনুরাগ বসুর বর্ফী সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন।

ডি’ক্রুজ ২০০৬ সালের তেলুগু চলচ্চিত্র দেবাদাসু-তে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ নারী অভিষেক বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার দক্ষিণ অর্জন করেছিলেন। তিনি পোকিরি (২০০৬), জলসা (২০০৮), কিক (২০০৯) এবং জুলায়ি (২০১২) সহ বিভিন্ন তেলুগু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। 

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More