‘১০৯’-এ একটি ফোনে বন্ধ হলো বাল্যবিয়ে

0 39

উপজেলা প্রতিবেদক, ধুনট (বগুড়া)
মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের জাতীয় হেল্প লাইন ১০৯ নম্বর থেকে ফোন পেয়ে বগুড়ার ধুনট উপজেলায় কনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত কনের মায়ের ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক আব্দুল্লাহ আল রনী এই দণ্ড দেন।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার রাঙ্গামাটি দিদারপাড়ার রেজাউল করিমের মেয়ে রাঙ্গামাটি বালিকা মাদরাসার ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী রিতু বেগমের (১২) পাশ্ববর্তি এলাঙ্গী-ফকিরপাড়ার আলম হোসেনের ছেলে সোহাগ মিয়ার (২০) সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়। উভয় পরিবারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বুধবার বিয়ের আয়োজন করেন। কনের বাড়িতে আয়োজন চলতে থাকে।

সংবাদ পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত কনের বাড়িতে উপস্থিত হন বুধবার দুপুরে। এসময় কনের বাবা কৌশলে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যান। পরে কনের মা মায়া খাতুন ভ্রাম্যমান আদালতে ১০ হাজার টাকা জরিমানা পরিশোধ করে মেয়েকে বাল্যবিয়ে দিবেন না মর্মে মুচলেকা দেন। তবে তখন পর্যন্ত বর ও তার পক্ষের লোকজন কনের বাড়িতে আসেননি। এ সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাল্যবিয়ে না করার জন্য মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বর পক্ষকে নিষেধ করা হয়েছে।

ধুনট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক আব্দুল্লাহ আল রনী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে ১০৯ নম্বর থেকে ফোন আসে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিয়েটি বন্ধ করা হয়েছে।

উপ-ধু/এমএইচ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More