শহীদ মুনীর চৌধুরীর জন্মদিবসে গুগলের বিশেষ ডুডল

0 201

||বঙ্গকথন প্রতিবেদন||

শিক্ষাবিদ, লেখক, নাট্যকার, সাহিত্য সমালোচক ও ভাষাবিজ্ঞানী মুনীর চৌধুরীর জন্ম দিবস আজ। দেশের ইতিহাসে শহীদ বুদ্ধিজীবী হিসেবে পরিচিত এই মানুষটির পুরো নাম আবু নয়ীম মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী। ১৯২৫ সালের ২৭ নভেম্বর তৎকালীন ঢাকা জেলার মানিকগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

শহীদ বুদ্ধিজীবী মুনীর চৌধুরীর জন্মদিন জন্মদিন উপলক্ষে সার্চ ইঞ্জিন গুগল বিশেষ ডুডল প্রকাশ করেছে। গুগলে প্রবেশ করলেই বিশেষ এ ডুডল দেখতে পাওয়া যাবো। এতে দেখা যায়, গুগলের লোগোর মাঝখানে শহীদ মুনীর চৌধুরী খোলা বই হাতে দাঁড়িয়ে আছেন। গায়ে শাল জড়ানো। চোখে মোটা কালো ফ্রেমের চশমা। তার জন্মদিন উপলক্ষে গুগলের লোগোও বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। ছবির ওপরে ক্লিক করলেই মুনীর চৌধুরীর ছবিসহ তার বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে।

শহীদ বুদ্ধিজীবি মুনীর চৌধুরী

মুনীর চৌধুরী শিক্ষাজীবন শেষে অধ্যাপনা পেশায় যোগ দিয়েছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি ও বাংলা বিভাগে অধ্যাপনা করেছেন তিনি। বামপন্থী আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত থাকার কারণে ১৯৪৯ সালে তিনি প্রথমবার গ্রেফতার হন। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে আবারও কারাবন্দি হন তিনি। ওই অবস্থায় ১৯৫৩ সালে তিনি তার বিখ্যাত নাটক ‘কবর’ রচনা করেন। ১৯৬৫ সালে তিনি বাংলা টাইপরাইটার কি-বোর্ড নতুন করে নকশা করে ‘মুনীর অপটিমা কিবোর্ড’ নামে একটি সংস্করণ বের করেন। ১৯৬২ সালে ‘রক্তাক্ত প্রান্তর’ নাটকের জন্য মুনীর চৌধুরী বাংলা একাডেমি পুরস্কার, ১৯৬৫ সালে ‘মীর মানস’ গ্রন্থের জন্য দাউদ পুরস্কার এবং ১৯৬৬ সালে পেয়েছিলেন সিতারা-ই-ইমতিয়াজ পুরস্কার।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী এ দেশের বুদ্ধিজীবীদের হত্যাযজ্ঞে নামলে সেই মিশনে ১৪ ডিসেম্বর মুনীর চৌধুরীকে অপহরণ করা হয়। রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে তার মৃতদেহটি আর শনাক্ত করা যায়নি।

এমএইচ//

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More