রহিঙ্গা সংকটে স্থায়ি সমাধানের বিষয়ে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে যুক্তরাষ্ট্র : স্টিফেন ই বিগান

0 30

।। বঙ্গকথন প্রতিবেদন ।।

রহিঙ্গা সংকটে একটি ধারাবাহিক এবং স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রি স্টিফেন ই বিগান । তিনি আরো বলেন এটি কেবলমাত্র বাংলাদেশের সমস্যা নয় । একটি বৈশ্বিক সমস্যা হিসেবে প্রাধান্য দিয়ে স্থায়ি সমাধানের লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে অব্যাহত সহযোগিতা করবে বলেও জানান তিনি ।

বৃহষ্পতিবার রাষ্ট্রিয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রির সাথে বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এসব কথা বলেন মার্কিন উপমন্ত্রি । ইন্দো প্যাসিফিক অঞ্চলে বাংলাদেশ তাদের অন্যতম প্রধান অংশীদার তাই রহিঙ্গা সংকটের সমাধানসহ নানা বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি ।

বৈঠক শেষে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রি ড. এ কে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, শক্তিশালী অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, স্থিতিশীলতা ও ভূ-রাজনৈতিক অবস্থানের কারণে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রসহ বৈশ্বিক মনোযোগ পাচ্ছে । আরও লক্ষ্য অর্জনে আমাদের দৃঢ় সম্পর্ক থাকবে।

মোমেন জানান, বৈঠকে বাংলাদেশের অবকাঠামো খাতে মার্কিন বিনিয়োগ, শিক্ষার্থীদের ভিসার সমস্যা এবং সমুদ্র অর্থনীতি ও জলবায়ু সংক্রান্ত বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি রাশেদ যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিশ্চয়ই হত্যাকারীদের আবাসভূমি হতে পারে না। তাদের অ্যাটর্নি জেনারেল বিষয়টি দেখছেন।

বাংলাদেশ এবং আমেরিকার সম্পর্ক দিন দিন সুদৃঢ় হচ্ছে। এই উন্নতি অব্যাহত থাকবে, তা নিয়ে  কোনো সন্দেহ নেই বলেও মন্তব্য করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রি ।

এর আগে সকালে ধানমন্ডির ৩২ নম্বর রোডে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিফেন ই বিগান।

জাদুঘর পরিদর্শনকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানান এবং ইন্টারন্যাশনাল ভিজিটরস বুকে তার অভিব্যক্তি ব্যক্ত করেন  বিগান লেখেন, স্বাধীনতার ৫০ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের মতো এমন বন্ধু পেয়ে যুক্তরাষ্ট্র গর্বিত। আমরা আশা করি, আগামী ৫০ বছর এবং এর পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ একটি শক্তিশালী, স্বনির্ভর ও উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করবে।’

মার্কিন উপমন্ত্রীকে পুরো জাদুঘর ঘুরে দেখান বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের কিউরেটর এন আই খান। এসময় ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফাহাদ উপস্থিত ছিলেন।

ভারতের নয়াদিল্লিতে তিনদিনের সফর শেষে বুধবার বিকালে ঢাকা পৌঁছান মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী। হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More