ধুনটে রঞ্জু হত্যামামলার তদন্ত ১১ মাস পর ডিবির হাতে

0 229

||উপজেলা প্রতিবেদক, ধুনট (বগুড়া)||
বগুড়ার ধুনট উপজেলায় রঞ্জু মিয়া (৪২) নামে এক কৃষককে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যাকাণ্ডের রহস্য ১১ মাসেও উন্মোচন করতে সক্ষম হয় নি থানা পুলিশ। ১১ মাস পর সম্প্রতি এই হত্যা মামলাটি তদন্তের জন্য বগুড়া জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ধুনট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) প্রদীপ কুমার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, মামলা তদন্তে আশানুরূপ অগ্রগতি না হওয়ায় নিহতের স্বজনরা ন্যায় বিচার পাওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শৈলমারি গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে সুলতান আলী, ফিরোজ আহম্মেদ ও কফিল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল হান্নান এলাকার চিহ্নিত মাদক কারবারি। তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনসহ বিভিন্ন অপরাধে একাধিক মামলা রয়েছে। এলাকায় মাদক দ্রব্য ব্যবসার প্রতিবাদী ছিল একই গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে কৃষক রজনু মিয়া। সুলতান ও তার সহযোগীদের মাদক কারবারের বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন রঞ্জু। এ কারণে সুলতান ও তার সহযোগীরা তার ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে।

এ অবস্থায় গত ৩১ জানুয়ারী সন্ধ্যায় রঞ্জু মিয়া বাড়ির অদুরে পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষ করছিলেন। এ অবস্থায় রাত ৯টার দিকে সুলতান ও তার সহযোগীরা জমির ভেতর তাকে কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়। স্বজনরা রঞ্জুকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাত ১টায় তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহত রঞ্জুর স্ত্রী শিরিনা খাতুন বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় সুলতান আলী, ফিরোজ ও আব্দুল হান্নানের নাম উল্লেখ্যসহ অজ্ঞাত আরো ৬ জনকে আসামী করা হয়েছে। থানা পুলিশ এই মামলার আসামী সুলতান আলী ও ফিরোজকে গ্রেফতার করেছে। তবে আদালত থেকে তাদের রিমান্ডে নিয়েও এই হত্যাকাণ্ডের কোনো রহস্য উন্মোচন হয় নি এখনো। বর্তমানে দুই আসামী বগুড়া জেলা কারাগারে রয়েছে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা তদন্তভার হস্তান্তর প্রসঙ্গে বলেন, সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এ ঘটনার তদন্ত করেছি। কেননা, একজন নিরপরাধ ব্যক্তিও যেনো হয়রানির শিকার না হন। এ অবস্থায় ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তার নির্দেশে মামলাটি বগুড়া ডিবিতে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা//এমএইচ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More